রসগোল্লার পুডিং

রসগোল্লার পুডিং

রসগোল্লার পুডিং (Roshgolla pudding)

উপকরন : সাদা রসগোল্লা ও রঙিগন রসগোল্লা,
দুধ ১ লিটার ( ঘন ) চিনি সবাদমত,
চায়না গ্রাস্ পরিমান মত বা জেনেটিন ২ চামুচ ( ইচছামত)।

রসগোল্লা :
উপকরন : তরল দুধ ১ লিটার, ( আমি একটু বেশী করেছি , তাই ১ লিটারের হিসাব এখানে ) ,
ময়দা ১ চা- চামুচ ,
চিনি ১ চা- চামুচ ,
গোলাপজল ১ চা- চামুচ,
এলাচগুড়া ১ টা,
ফুড কালার জাফরান বা লাল ইচছামত।

সিরার জন্য : চিনি ১ কাপ, পানি ৩ কাপ।

ছানা :
উপকরন : ১ লিটার তরল দুধ,
লেবুর রস / ভিনিগার ২ টে- চামুচ বা আধা কাপের একটু কম।

প্রনালী : চুলাতে দুধ জ্বাল দিন। দুধে বলক উঠলে লেবুর রস বা ভিনিগার ঢেলে দিন। নাড়তে থাকুন। ১০ মিনিট পর ছানার পুরাপুরি পানি কেটে যাবে। পানি সবুজ রঙ হলে বুঝবেন ছানা তৈরি পারফেক্ট। এবারে পাতলা সুতি কাপড়ে ঢেলে পরিসকার পানি তে ভালো করে ধুয়ে পুটুলি করে ঝুলিয়ে রাখুন বা ছাকনি তে ঢেলে রাখুন। কিছুখন রেখে দিন। পরে বাতাসে ছাড়িয়ে শুকিয়ে নিন। ছানা তৈরি। ( এটা ১ লিটার দুধের ছানা )

প্রনালী : ছানা তৈরি করে বাতাসে ছাড়িয়ে রাখুন ২/৩ ঘন্টা। এবারে ছানা শিলপাটাতে কয়েকবার পিষে নিন মসৃন করে। ১ চা- চামুচ চিনি, ময়দা,এলাচগুড়া দিয়ে ভালো করে ময়ম দিন। এমন ভাবে ময়ম দিন ছানা হাতে আটকিয়ে থাকবেনা ও হাতে তেল ভাব চলে আসবে তখন বুঝবেন ছানা তৈরি। এখন ছানাকে ২ ভাগ করে ১ ভাগ সাদা ও অন্য ভাগের সাথে ফুড কালার দিয়ে ভালো করে মাখিয়ে নিন যেন ছানার সাথে রঙটা ভালোমত মিশে যায়। এবারে ছানাকে কয়েক ভাগে ভাগ করে নিন। ভাগটা যেন সমান হয় তাহলে মিষ্টি একই মাপের হবে। ১ লিটার দুধের ছানাতে মিষ্টি ৫/৬ টা হবে। মিষ্টির গোল সমান করে করুন কোন ফাটা না থাকে। হাতে একটু ঘি মাখিয়ে গোল তৈরি করে নিতে পারেন।
এবারে চুলাতে ১ কাপ চিনি ও ৩ কাপ পানি দিয়ে ফুটতে দিন। ফুটে উঠলে সিরার উপরের ময়লা চামুচ দিয়ে তুলে ফেলুন। চুলার জ্বাল কম করে রাখুন।

এবারে মিষ্টি গুলো ঐ ফুটন্ত সিরাতে আসতে করে দিয়ে দিন। জ্বাল বাড়িয়ে দিন। কিছুখন পর মিষ্টি গুলো সিরার উপর ভেসে উঠলে চামুচ দিয়ে মিষ্ট গুলো সিবাতে ডুবিয়ে ঢেকে দিন। পানির প্রয়োজনে একটু গরম পানি দিয়ে দিন। ২৫/৩০ মিনিট পর ১ টা মিষ্ট তুলে পানিতে ছাড়ুন মিষ্টি পানিতে ডুবে গেলে ও আকার ঠিক থাকলে বুঝবেন রসগোল্লা তৈরি। একবারে পারফেক্ট । চুলা থেকে নামিয়ে ১ চা- চামুচ গোলাপজল দিয়ে দিন। ৫/৬ ঘনটা পর রঙিগন তুলে নিন। একই নিয়মে সাদা রসগোল্লা তৈরি করে রাখুন।

এবারে ১ লিটার দুধ জ্বাল দিয়ে আধা লিটার করে চায়না গ্রাস্ বা জেনেটিন ফুটন্ত দুধে দিয়ে দিন। ( জেনেটিন দিলে আলাদা ভাবে গুলিয়ে ঢেলে দিতে হবে) । দুধ ঘন হয়ে আসলে যে পাত্রে পুডিং বসাবেন সেই পাত্রে ঘি ব্রাস করে সাদা রসগোল্লা ও রঙিগন রসগোল্লা সাজিয়ে ঐ ঘন গরম দুধ ঢেলে দিন রসগোল্লার উপর।

এবারে একটু ঠান্ডা করে নরমাল ফ্রিজে রেখে দিন ৪/৫ ঘন্টা ( আমি রাতে করে রেখেছিলাম সকালে বের করেছি।) ফ্রিজ থেকে বের করে পাত্রের চারপাশ চাকু দিয়ে ঘুড়িয়ে পুডিং এর মত করে ঢেলে নিন উল্টিয়ে। পছন্দমত আকারে কেটে পরিবেশন করুন রসগোল্লার পুডিং। একটি নতুনত্বের ছোয়া।