পুস্তদানার হান্দেশ

পুস্তদানার হান্দেশ (Handesh)

আমার অনেক প্রিয় খাবার। পুস্তদানার হান্দেশ বলি আমরা সিলেটে। ছোট বেলায় বানানো হলে সব গুলো আমরা ভাই বোনেরা মিলে লুকিয়ে খেয়ে ফেলতাম। হায়রে আমার সোনার দিন গুলো হারিয়ে গেছে।

যা লাগবে
আতপ চাল/ বুরো চাল -১কাপ+১/৪কাপ(২৫০ গ্রাম আমি চালের যে পট থাকে ওটা দিয়া মেপেছি)
চিনি-১/২কাপ+২টে:চামচ
তরল দুধ-২,১/২টে: চামচ
পুস্তদানা
ভাজার জন্য তেল।

প্রনালী: চাল আগের দিন ভিজিয়ে রেখে দিবেন।সকালে ঝাজ রিতে পানি ঝড়িয়ে খবরের কাগজের উপর রেখে দিবেন।পানি ঝরে গেলে শুকনো করে শিল-পাটায় বা গ্রাইন্ডারে গুড়ো করে নিবেন।

একটি পাত্রে চিনি দুধ মিশিয়ে নিন।কিছুক্ষণ মাখানোর পর চালের গুড়ি দিন। ময়ান করুন। ময়ান করতে করতে দেখবেন নরম আঠালো হয়ে গেছে।অল্প খামির দিয়ে বল বানিয়ে ট্রেতে রেখে দিন,যদি দেখেন ফ্লাট হয়ে যাচ্ছে(চ্যাপ্টা হয়ে যাচ্ছে) তার মানে খামির রেডি। এটা আপনার ময়ান আর উপর নির্ভর করবে

চুলায় অল্প আচে তেল বসিয়ে দিন। আমরা ডুবো তেলে পিঠা গুলো ভাজবো।পুস্তদানা হাল্কা ভেজে একটি ট্রে তে ছড়িয়ে দিন। খামির থেকে অল্প অল্প নিয়ে হাতের তালু দিয়ে বল বানিয়ে পুস্তদানার উপর রেখে সাহাদা আংগুল দিয়ে চেপে দিন। প্রতিটা একিই নিয়মে করবেন। ৪/৫ টা বানানো হলে গরম তেলে পুস্তদানা দেয়া দিকটা উপরে রেখে পিঠা গুলো গরম তেলে দিয়ে মাঝারি থেকে হাল্কা আচে রেখে ভাজুন। বেশি ভাজা জাবেনা,১ মমিনিট ভাজলেই হবে।এভাবে সব কয়টি বানিয়ে নিন। ঠান্ডা হতে দিন। আমার আম্মু ঈদের আগের দিন রাতে বানিয়ে রাখতেন। খেতে অনেক মজার।